ঘোষণা:
আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম...

গাইবান্ধায় শহীদ ছাত্রনেতা ময়নুল আখতার রুবেল হত্যা দিবস পালন করেছে ছাত্র ইউনিয়ন

মো তানভীর রহমান / ৪৯ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: রবিবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২২, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন

গাইবান্ধায় শনিবার সকাল ১১টা থেকে শহরের ১নং রেলগেট সংলগ্ন জেলা কার্যালয়ে রুবেল হত্যা দিবস উপলক্ষে দিনব্যাপী নানান কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের পতাকা ও কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচী শুরু হয়। এরপর শহীদ রুবেলের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানানোর শেষে জেলা সংসদের সভাপতি তাহমীদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও জেলা সা:সম্পাদক মৈত্রেয় হাসান জয়িতার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সংসদের ক্রীড়া সম্পাদক শিমুল কুম্ভকার, কুড়িগ্রাম জেলা সংসদের সভাপতি অনিরুদ্ধ প্রণয় প্রান্তিক, কুড়িগ্রাম জেলা সংসদের সাংস্কৃতিক সম্পাদক নিলয় কুমার দাস, গাইবান্ধা জেলা সংসদের সহ.সাধারণ সম্পাদক এসবি বিকাশ, গাইবান্ধা জেলা সংসদের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শুভ মণ্ডল, সমাজকল্যাণ সম্পাদক ইউসুফ মিয়া, ক্রীড়া সম্পাদক ইমন মিয়া, দারিয়াপুর আঞ্চলিক সংসদের সহ.সভাপতি আব্দুর রউফ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের (মার্কসবাদি) গাইবান্ধা জেলা সভাপতি পরমানন্দ দাস, যুবনেত্রী খাদিজা খাতুন প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করেন নেতৃবৃন্দ।
শহীদ রুবেল গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা ছাত্র ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। ১৯৮৬ সালের ১১ নভেম্বর গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়,সম্মেলন মঞ্চে পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালায়। প্রতিবাদে রুখে দাঁড়ায় ছাত্ররা এর অগ্রভাগে ছিলেন মইনুল আখতার রুবেল। সম্মেলনস্থলে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হলে ১২ নভেম্বর রুবেল মৃত্যুবরণ করেন।
এই হত্যাকান্ডের ৩৬ বছর পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত খুনিদের শাস্তি না হওয়ায় সভায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন নেতৃবৃন্দ।
উল্লেখ্য,তখন থেকে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন এই দিনটিকে শহীদ রুবেল হত্যা দিবস হিসেবে পালন করে আসছে ।
শহীদ রুবেল বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার দেউলি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা গোলাম মোস্তফা,প্রাইমারি স্কুলের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। শিক্ষা ব্যবস্থার বৈষম্য দূর করতে এবং শোষণমুক্ত সমাজ ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য ছাত্র ইউনিয়নের ঐক্য, শিক্ষা, শান্তি ও প্রগতির নীল পতাকাকে আদর্শ হিসেবে নিয়েছিলেন শহীদ রুবেল।
শহীদ রুবেলের অমর স্মৃতি স্মরণে ‘শহীদ রুবেল পাঠাগার’ উদ্বোধনের মাধ্যমে দিনব্যাপী কর্মসূচীর সমাপ্তি ঘটে। পাঠাগার উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সংসদের ক্রীড়া সম্পাদক শিমুল কুম্ভকার।

 Save as PDF


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর