ঘোষণা:
আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম...

ফেসবুকে সহপাঠীর স্ট্যাটাসে ‘হা হা’ রিঅ্যাক্ট দেওয়ায় এক শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করার অভিযোগ উঠেছে তার সহপাঠীর বিরুদ্ধে।

মো তানভীর রহমান / ৪১ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩, ৪:৩৩ অপরাহ্ন

বুধবার (০১ ফেব্রুয়ারি) বেলা দেড়টার দিকে রাজশাহী কলেজ মাঠে এই ঘটনা ঘটে।ঘটনার পর সহপাঠীরা আহতকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।আহত শিক্ষার্থী নাম তিহাস (২১)। তিনি রাজশাহী কলেজের মার্কেটিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তাকে ছুরিকাঘাতে আহত করা অভিযুক্ত শিক্ষার্থীও একই বিভাগের। তার নাম কিবরিয়া বলে জানিয়েছেন রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুল খালেক।আহত শিক্ষার্থীর সহপাঠী তারেক হোসেন বলেন, আজ দুপুরে ক্লাস শেষে মাঠের মধ্যে রোদে বসেছিল তিহাস। এ সময় হঠাৎ করে কয়েকজন যুবক এসে তিহাসকে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। পরে অন্যরা এসে তাকে উদ্ধার করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে যান তারা। পরে সেখান থেকে তাকে হাসপাতালের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানে সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুল খালেক বলেন, ফেসবুকের একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানতে পেরেছি। আর যেই ছেলেটি ছুরি মেরেছে সেও এই কলেজের একই বিভাগের ছাত্র। তার নাম কিবরিয়া বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে। বর্তমানে ঘটনাটি খতিয়ে দেখছি আমরা। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।এছাড়া পুলিশকেও আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে বলে জানান অধ্যক্ষ।রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি দুই বন্ধুর মধ্যে ঘটেছে। সামান্য বিষয়কে কেন্দ্র করে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। কলেজের ভেতর ঢুকে প্রকাশ্যে হামলা চালানো ওই ছাত্র এবং তার সহযোগীদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 Save as PDF


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর