ঘোষণা:
আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম...

হজযাত্রীদের বায়োমেট্রিক ভিসা আবেদন শুরু ১৬ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২১ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বুধবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৩, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন

চলতি বছরের হজের জন্য নিবন্ধিত হজযাত্রীদের বায়োমেট্রিক ভিসা আবেদন আগামী ১৬ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী একযোগে শুরু হবে। বায়োমেট্রিক ভিসা আবেদনের শেষ হবে ৩০ এপ্রিল।
বুধবার (১২ এপ্রিল) ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে।এতে বলা হয়, সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীরা সব জেলার ইসলামিক ফাউন্ডেশন কার্যালয়, ঢাকায় অবস্থিত ইসলামিক ফাউন্ডেশন আগারগাঁও, ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম মসজিদ কমপ্লেক্স, ঢাকা ওয়াক্ফ প্রশাসকের কার্যালয় এবং আশকোনা হজ অফিসে বায়োমেট্রিক ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীরা যেখানে বায়োমেট্রিক ভিসার জন্য আবেদন করবেন সেখানে তাদের পাসপোর্ট জমা দেবেন এবং রশিদ গ্রহণ করবেন।আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীরা নিজ নিজ এজেন্সির মাধ্যমে এবং হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) অফিসে বায়োমেট্রিক ভিসার জন্য আবেদন করতে পারবেন। বায়োমেট্রিক ভিসা আবেদনের পরে পাসপোর্টসমূহ নিজ নিজ এজেন্সির কাছে জমা দিয়ে রশিদ নেবেন।লিড এজেন্সি নির্ধারণ:অপর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, হজের নিবন্ধন কার্যক্রম ১১ এপ্রিল শেষ হয়েছে এবং নিবন্ধন সার্ভার বন্ধ রয়েছে।যেসব হজ এজেন্সির হজযাত্রীর সংখ্যা ৯৭ এর নিচে তারা আগামী ১৩ এপ্রিলের মধ্যে অবশ্যই লিড এজেন্সি নির্ধারণ করে সমন্বয় করবে। সমন্বয়ের পরে হজ এজেন্সির বিপরীতে প্রযোজ্য গাইড ও মোনাজ্জেম সংখ্যা যোগ করে চূড়ান্ত কোটা সৌদি আরবে ই-হজ সিস্টেমে এন্ট্রির জন্য পাঠানো হবে।হজ এজেন্সির চূড়ান্ত কোটা সৌদি আরবে পাঠানোর পর বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের পিলগ্রিম আইডি দেওয়ার জন্য সিস্টেমে উন্মুক্ত করা হবে।কয়েক দফা বাড়ানোর পর সব শেষ পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, সরকারি ব্যবস্থাপনা নিবন্ধন করেছেন ১০ হাজার ৩৫ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় নিবন্ধন করেছেন এক লাখ নয় হাজার ৬৬০ জন।চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২৮ জুন (৯ জিলহজ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। গত ৯ জানুয়ারি সম্পাদিত সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি মতে এবছর সর্বমোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন বাংলাদেশ থেকে হজে অংশ নিতে পারবেন।

 Save as PDF


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর