শিরোনাম:
শিরোনাম:
তৃতীয় দিনের ন্যায় গাইবান্ধা সদরের মোল্লারচরের বন্যাতদের মাঝে ত্রান বিতরন গাইবান্ধা সদরের দুই ইউনিয়নের বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ ও শুকনো খাবার বিতরণ গোবিন্দগঞ্জে শিশুকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার কোটা নিয়ে আপিল বিভাগে শুনানি বুধবার গাইবান্ধায় বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শন ও বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরন বিজ্ঞাপনের জন্য ফি নিতে পারবে না বিআরটিএ: হাইকোর্ট নেপালে বন্যা-ভূমিধসে ১৪ জনের প্রাণহানি তিস্তা প্রকল্পে ভারত-চীন একসঙ্গে কাজ করতে রাজি: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বগুড়ায় পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু গাইবান্ধায় গৃহবধূর গোসলের ভিডিও ধারণের সময় পুলিশ সদস্য আটক
ঘোষণা:
আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম...

পলাশবাড়ীতে শিশু বাইজিদ হত্যার রহস্য উদঘাটন সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার জনাব কামাল হোসেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৫ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১৬ মে, ২০২৩, ৬:১১ অপরাহ্ন

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার চাঞ্চল্যকর শিশু আব্দুল্লাহ ওরফে বাইজিদকে (৪) হত্যার মূল সহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনকে রিমান্ডে নিলে তারা এই হত্যার স্বীকারোক্তি দেয়।মঙ্গলবার (১৬ মে) দুপুরে গাইবান্ধার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার কামাল হোসেন।গ্রেফতাররা হলেন— খোরশেদ আলম (২১) আশাদুজ্জামান রনি (১৯), ছকিনা বেগম (৬০), ববিতা বেগম (৪৫), মনিরা বেগম (২২), রোস্তম আলী মন্ডল (১৪) ও সোহাগ মন্ডল (১৬)।সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের তালুক ঘোড়াবান্দা (বালুখোলা) গ্রামের তাহারুল ইসলাম ও রাহেনা বেগম দম্পতির ছেলে আব্দুল্লাহ ওরফে বাইজিদ গত ৮ মে বিকেল ৪টা থেকে ৫টার মধ্যে খেলার সময় নিখোঁজ হয়। এরপর সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলেও বাড়িতে না ফেরায় ৯ মে শিশুর মা রাহেনা বেগম পলাশবাড়ী থানায় জিডি করেন। পরবর্তীতে ১০ মে রাহেনা বেগম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।এদিন একই গ্রামের সাইফুল ইসলাম শেরেকুলের ছেলে সাকিব হাসান রোমান (১৯) ও সোহরাফ হোসেনের ছেলে শরিফুল ইসলামকে (২০) ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহ গ্রেফতার করা হয়। তাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বাইজিদকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে তথ্য প্রদান করে। এরপর গ্রেফতারদের রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে পুলিশ আবেদন করে।এদিকে, ১৩ মে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে আসামি রোমানের বাড়ির পূর্ব পাশে ধানক্ষেত থেকে আব্দুল্লাহ বাইজিদের গলিত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ১৪ মে বিজ্ঞ আদালত রোমান ও শরিফুলের রিমান্ড মঞ্জুর করে। পুলিশ রিমান্ডের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদে আসামি সাকিব হাসান রোমান এই হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। পরে এ ঘটনায় খোরশেদ আলম, আশাদুজ্জামান রনি, ছকিনা বেগম, ববিতা বেগম, মনিরা বেগম, রোস্তম আলী মন্ডল ও সোহাগ মন্ডলসহ মোট ৯ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন— গাইবান্ধার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অর্থ ও প্রশাসন) ইবনে মিজান, পলাশবাড়ীর ওসি মাসুদ রানা, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক নুর-ই আলম সিদ্দিকী প্রমুখ।

 Save as PDF


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর