ঘোষণা:
আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম...

শীতে স্কুল ছুটির নির্দেশনা নিয়ে বিভ্রান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১২ বার পঠিত
প্রকাশের সময়: বুধবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০২৪, ১১:১১ পূর্বাহ্ন

তীব্র শীতে মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল বন্ধে চার ঘণ্টার মধ্যে তিন রকম নির্দেশনা দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। এ রকম নির্দেশনা নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে।মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে প্রথম নির্দেশনাটি দেয়া হয়। এর ঘণ্টাখানেক পরেই নির্দেশনাটি সংশোধন করে মাউশি। সর্বশেষ নির্দেশনা দেয়া হয় রাত সাড়ে ৮টার পর।

সহকারী পরিচালক (মাধ্যমিক-২) এস এম জিয়াউল হায়দার হেনরী স্বাক্ষরিক মাউশির সর্বশেষ নির্দেশনায় বলা হয়, ‘দেশের বিভিন্ন জেলায় বর্তমানে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ চলমান। শৈত্যপ্রবাহে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। এ জন্য যেসব জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে (আবহাওয়ার পূর্বাভাসের প্রমাণসহ) নেমে যাবে, সেসব জেলার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম শীতের তীব্রতা ও স্থানীয় বিবেচনায় সিদ্ধান্ত নিয়ে সাময়িকভাবে বন্ধের নির্দেশনা দেয়া যাবে।’

প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় উপপরিচালকেরা ওই নির্দেশনা দিতে পারবেন। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তদূর্ধ্ব না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা যাবে। ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত এই আদেশ বলবৎ থাকবে।প্রথম নির্দেশনায় বলা হয়, দেশের বিভিন্ন জেলায় তীব্র শৈত্যপ্রবাহ প্রবাহিত হচ্ছে। চলমান এই শৈত্যপ্রবাহে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে বলে জানা যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে যেসব জেলায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে (আবহাওয়ার পূর্বাভাসের প্রমাণসহ) নেবে যাবে, সেসব জেলার মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রাখা হবে।

ঘণ্টাখানেক পরেই মাউশি সংশোধন করে দেয়া নির্দেশনায় স্কুল ছুটির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির কথা বলা হয়। এই নির্দেশনা নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়। কারণ, আবহাওয়া অধিদফতরের হিসাবে দেশে গত চার দশকের বেশি সময়ে এক দিনও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামেনি।

বিষয়টি নিয়ে রাত সাড়ে আটটার দিকে দ্বিতীয় দফা সংশোধনী দেয় মাউশি। এতে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কথাটি বাদ দেয়া হয়। বলা হয়, দিনের তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস বা তার নিচে নামলে আলোচনার মাধ্যমে স্কুল বন্ধ রাখা যাবে।আবহাওয়া অধিদফরের কর্মকর্তারা বলছেন, মাউশি বলেছে দেশে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, এটা ঠিক নয়। দেশের কয়েকটি জেলায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে, তীব্র নয়। শৈত্যপ্রবাহের ধরন চারটি-মৃদু, মাঝারি, তীব্র ও অতি তীব্র।

মাউশি নির্দেশনা দেয়ার আগে আবহাওয়া অধিদফতরের সাথে কথা না বলার কারণে এমনটি হয়েছে বলে জানান আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক মো: আজিজুর রহমান।

 Save as PDF


এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর